শনিবার   ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৫ ১৪২৬   ২১ মুহররম ১৪৪১

১১

থাইল্যান্ডকে হারিয়ে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক:

প্রকাশিত: ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

আবারো বাছাই পর্বের চ্যাম্পিয়ন হয়ে মেয়েদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিশ্চিত করলো বাংলাদেশ। বাছাইপর্বে তিন ম্যাচের তিনটিতেই জিতে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে শনিবার অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়েছে টাইগ্রেসরা। ফাইনালে তারা ৭০ রানে হারিয়েছে প্রথমবার বৈশ্বিক টুর্নামেন্টে পা রাখা থাইল্যান্ডকে।

ডান্ডির ফোর্টহিলে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ। সানজিদা ইসলামের হাফসেঞ্চুরিতে ৫ উইকেটে করে ১৩০ রান। বোলারদের নৈপুণ্যে থাইদের ৭ উইকেটে ৬০ রানে থামিয়ে দেয় বাংলাদেশ।

এর আগে ব্যাট করতে নেমে দারুণ শুরু করে বাংলাদেশ। সানজিদা ও মুর্শিদা খাতুনের ৬৮ রানের উদ্বোধনী জুটিতে বড় স্কোরের আভাস দেয় তারা। কিন্তু মুর্শিদা ৩৩ রানে ফিরে যাওয়ার পর রানের গতি কমে যায়। অন্য ব্যাটসম্যানদের কাছ থেকে উপযুক্ত সঙ্গ না পেলেও সানজিদা নিজের কাজ ঠিকমতো করে গেছেন। ৬০ বলে ৬ চার ও ৩ ছয়ে ইনিংস সেরা ৭১ রানে অপরাজিত ছিলেন। আর কোনো ব্যাটসম্যান দুই অঙ্কের ঘরে রান করতে পারেননি।

থাইল্যান্ডের পক্ষে সর্বোচ্চ ২ উইকেট নেন নাতায়া বুচাথাম। একটি করে পান সোরনারিন টিপোচ ও সুলিপরন লাওমি।

১৩১ রানের লক্ষ্য দিয়ে নাহিদা আক্তারের বোলিংয়ে শুভ সূচনা করে বাংলাদেশ। এই বাঁহাতি স্পিনার তার প্রথম দুই ওভারে উইকেট নেন। এই বিপর্যয় কাটিয়ে উঠতে পারেনি থাইল্যান্ড। ৭ রানে ২ উইকেট হারানো দলটি শেষ দিকে শায়লা শারমিনের ডানহাতি স্পিনে কাবু হয়।

১৭তম ওভারে ৪১ রানে ৭ উইকেট হারায় থাইল্যান্ড। এরপর আর কোনও উইকেট না হারালেও লড়াইয়ে ফিরতে পারেনি তারা। কেবল ওংপাকা লিয়েঙ্গপ্রাসার্ট (১১) ও রাতানাপরন পাদুঙ্গলার্দ (১৫) দুই অঙ্কের ঘরে রান করেন। বাংলাদেশের পক্ষে দুটি করে উইকেট নেন নাহিদা ও শায়লা। একটি করে পান সালমা খাতুন ও খাদিজা তুল কুবরা।

গত বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ফাইনালে আয়ারল্যান্ডকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল বাংলাদেশ। এবারো তারা টুর্নামেন্ট সেরা হয়ে চতুর্থ বিশ্বকাপ খেলতে যাচ্ছে। সিডনিতে আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হবে বিশ্বমঞ্চের লড়াই। উদ্বোধনী দিনের ৩ দিন পর ২৪ ফেব্রুয়ারি পার্থের ওয়াকায় বাংলাদেশ প্রথম ম্যাচ খেলবে ভারতের বিপক্ষে। ‘এ’ গ্রুপে তাদের অন্য প্রতিপক্ষ বর্তমান চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কা।

রাজবাড়ী প্রতিদিন
রাজবাড়ী প্রতিদিন