বুধবার   ২৩ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৭ ১৪২৬   ২৩ সফর ১৪৪১

১৭

নান্দকিতা বজায়ে বাড়ির রঙ বাছাই

লাইফস্টাইল ডেস্ক:

প্রকাশিত: ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

আমরা অনেকেই মনে করি, ঘর রং করা একটা সাধারণ বিষয়। আবার আমরা অনেকেই ঘর রং কারার সময় প্রতিটি রুমের জন্য একই রং নির্বাচন করি। আবার অনেকের বাসায় রুমগুলোতে আলাদা আলাদা রং করলেও আদৌই তার ঘরটা ভালো লাগছে কি না, এ নিয়ে মনের মধ্যে থাকে হাজারটা প্রশ্ন। কিন্তু মনোবিজ্ঞানীদের মতে, ঘরের প্রকারভেদে আলাদা আলাদা রং আপনার মনে এনে দিতে পারে প্রশান্তির ছোঁয়া, আপনার ঘরের এই বাহারি রঙের প্রভাবে আপনার এবং আপনার পরিবারের মানসিক অবস্থার উন্নতি ঘটাতে পারে, সেইসঙ্গে আপনার ঘরে আসবে নান্দনিকতার ছোঁয়া। তাহলে জেনে নিন, কোন ঘরের রং কেমন হওয়া উচিত।   


ড্রইংরুম

গল্প-গুজব, অতিথি আপ্যায়ন সবই যেন এই ড্রইংরুমকে ঘিরেই। বাড়িতে কোনো অতিথি এলে আগেই চোখে পড়ে এই ঘর। তাই এই ঘরটিকে রাঙান একটু ভিন্ন আঙ্গিকে। এই ঘরের রঙের ক্ষেত্রে আপনি বাছাই করতে পারেন একটু গারো রং। লাল, হলুদ, কমলা অথবা একটু ভিন্ন বাদামি, ধূসর। এই রংগুলো কেমন যেন অতিথিকে শুভেচ্ছাবার্তা পাঠায় কিছু সময় গল্প করার জন্য।  


বেডরুম

আমাদের সারা দিনের কর্মব্যস্ততার পরে একটু স্বস্তির জন্যই এই ঘরে প্রবেশ করি। এই ঘরটিই যেন সারা দিনের ক্লান্তি থেকে মুক্তি পাওয়ার উৎস। তাই এই ঘরটি হওয়া চাই শীতল ও ঠান্ডা। তাই এই ঘরটির জন্য রং নির্বাচনের তালিকায় রাখুন সাদা, ঘিয়া , হাল্কা গোলাপি। যখন আপনি কলাপ আশন প্রশান্তি রঙের মধ্যে অবস্থান করবেন, তখন আপনার মধ্যে নেমে আসবে শান্তির ছায়া। তাই আপনার ঘরের এই রংগুলো আপনাকে রাখবে ফুরফুরে, সেইসঙ্গে আপনার মনে শান্তির প্রভাব ফেলবে। 


ডাইনিং রুম

ডাইনিং রুমে একটু নান্দনিকতার ছোঁয়া পেতে চাইলে ব্যবহার করুন উজ্জ্বল রংগুলো। আপনি কি অনেক বেশি অতিথিপরায়ণ? সবাইকে রান্না করে খাওয়াতে আপনি কি পছন্দ করেন? তাহলে আপনার ডাইনিং রুমটা রাঙাতে পারেন লাল রঙে। আপনার ডাইনিং রুমের রং যদি লাল হয়, তাহলে মানুষ ভাববে আপনি অনেক ভালো রান্না করেন। আর এই মতবাদ দিয়েছেন রং বিশেষজ্ঞ ‘হ্যারিংটন’। ব্যপারটা কিছুটা হাস্যকর মনে হলেও এটিই সত্যি।আপনি ইছা করলে বিভিন্ন রকম ওয়াল ম্যাট ব্যাবহার করতে পারেন।


রান্নাঘর

রান্নাঘরের জন্য লাল ও হলুদ রং বেশ মানানসই। লাল ও হলুদ  ক্ষুধা বাড়ায়। তাই তো বেশির ভাগ রেস্টুরেন্টে এই রংগুলোই বেশি প্রাধান্য পায়। তবে আপনার ওজন যদি একটু বেশি হয়, তাহলে লাল-হলুদকে এড়িয়ে যান। এ ক্ষেত্রে আপনি রান্নাঘরে নীল রং ব্যবহার করতে পারেন। নীল আপনাকে ডায়েট করতে সাহায্য করবে। 


বাথরুম

বাথরুমের রঙের ক্ষেত্রে আপনি একটু হালকা রং বেছে নিন। বাথরুমের রঙের জন্য সাদাই বেশ উপযোগী। সাদা বা হালকা রংগুলো আপনার বাথরুমে পরিচ্ছন্নতার ছোঁয়া আনবে। আজকালকার সময়ে বাথরুম শুধু গোসলের জন্যই সীমাবদ্ধ নেই। এখন নিজের যত্নে বেশ খানিকটা সময় আপনাকে বাথরুমেই ব্যয় করতে হয়। নিজের যত্নে আপনি বাথরুমে স্পা করেন, আবার নিজেকে রিল্যাক্স করেন। তাই আপনার বাথরুমের রঙে বেছে নিন সাদা, টারকুইশ নীল ও সবুজ।  


বারান্দাঃ

বারান্দায় ব্যাবহার করতে পারেন সবুজ রঙ। প্রকৃতি এর সাথে সহজেই মিলে যেতে পারবেন আই রঙ বেবহার এর মধ দিয়ে।


লিভিং রুমঃ

লিভিং রুম আমরা সাধারণত পরিবার এর সবাই মিলে আডা দিয়ে থাকি।এই ঘরটাতে আপনি সাজাতে পারেন কাঠ দিয়ে। অথবা কাঠের রঙ দিয়ে। হাল্কা বেগুনি, আকাশী ,সাদা রঙ যায় লিভিং রুম এর সাথে।

রাজবাড়ী প্রতিদিন
রাজবাড়ী প্রতিদিন